গ্রীষ্মে বাড়ির এক্সটেরিয়রের যত্ন নিন

বাড়ির বাহিরের অংশের রঙ বা ডিজাইন বাড়িকে অন্য সবার কাছে তুলে ধরে। কারন এই অংশটিই আগে সবার চোখে পড়ে। বাড়ির বাহিরের ডিজাইনকে গ্রীষ্মের সূর্য্যের তাপ, গরম আবহাওয়া, বৃষ্টি এবং আর্দ্রতা থেকে রক্ষা করা একটা বড় ধরনের কারন হয়ে উঠে। তাই সামান্য কিছু নিয়ম অনুসরন করলে গ্রীষ্মের এই তাপ থেকে বাড়ির বাহিরের অংশকে আপনি রক্ষা করতে পারবেন। আমরা কিছু টিপস শেয়ার করলাম আপনাদের সাথে যেগুলো রঙ করার পূর্বে আপনাদের কাজে লাগবে-

- রঙ করার পূর্বে যে অংশ গুলোতে রঙ লাগাতে হবে যেগুলো ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। যেন ছোট ছোট ছিদ্রের মধ্যেও কোন ধরনের ধুলাবালি না থাকে যার কারনে একটা সময়ে রং ঝড়ে পড়ে।

- যে অংশ গুলোতে জোড়া আছে বা ভালো করে ফিটিংস হয়নি সেসব অংসে ভালো করে চেক করতে হবে যেন ভালো করে রঙ করার পরে মেটেরিয়েলসের কারনে ফিনিসিংটা নষ্ট না হয়ে যায়।

- যে যায়গা গুলোতে নিম্ন মানের মেটেরিয়েলস ব্যবহৃত হয়েছে সেগুলো পরিবর্তন করে নিন কারন ভালো করে রঙ করার কয়েক দিনপর এটি নষ্ট হয়ে আপনার বাড়ির সৌন্দর্যই নষ্ট করে দিবে।

- ভালো জিনিসের খরচ একটু বেশি হলেও দীর্ঘদিন টিকে তাই আপনি ভালো জিনিসটাকেই বেচে নিন কারন ঘন ঘন রঙ করানো অনেক দূসার্ধ্য। এ ক্ষেত্রে বাজারে যাচাই করে ভালো রঙ এবং রঙের মেটেরিয়েলস কিনুন।

- বাজার থেকে ভালো রঙ কিনার পর রঙকে কিভাবে ব্যবহার করতে সেটা ভালো করে জেনে নিন বা খোঁজ নিন যাদের দিয়ে আপনি কাজটি করচ্ছেন, এই জন্য প্রোডাক্টের গায়ের ইন্সট্রাকশন ফলো করুন। মনে রাখবেন এটা
ক্যামিকেল জাতীয় পদার্থ তাই এটার মিশ্রন এর উপর অনেক কিছুই নির্ভর করে।

- রঙের প্রথম কোট দেয়ার পর সময় নিয়ে শুকিয়ে নিন এদিকেও খেয়াল রাখতে হবে একেক রঙ শুকাতে এক এক ধরনের সময় লাগবে। রং ভালো করে না শুকালে লেভেল ঠিক করা যায় না।
- রঙ লাগানোর পূর্বে সেফটির দিকে খেয়াল রাখুন।

আমরা Studio Triangle Bd বাড়ির এক্সটেরিয়র, ইন্টেরিয়র ডিজাইন করে থাকি।  মনে রাখবেন আপনার সারা জীবনের উপার্জিত টাকা দিয়ে আপনি বাড়ি করছেন তাই বাড়ি করার আগে আধুনিক, রুচিশীল এবং ক্রিয়েটিভ ডিজাইন নিয়েও চিন্তা করতে হবে।
Feedback